• Parabaas
    Parabaas : পরবাস : বাংলা ভাষা, সাহিত্য ও সংস্কৃতি
  • পরবাস | সংখ্যা ৯৩ | জানুয়ারি ২০২৪ | ভ্রমণকাহিনি, প্রকৃতি, বাকিসব
    Share
  • বুড়োবুড়ির বিনা ভিসায় বিদেশভ্রমণ (৩) : রাহুল মজুমদার
    পর্ব ১ | পর্ব ২ | শেষ পর্ব



    ১৫ অক্টোবর, সকাল ৯টা

    আজ বিনা ভিসায় বিদেশ ভ্রমণের শেষ দিন। আগামীকাল আবার নিজ কুলায়। দিনটাকে চেটেপুটে নিতে হবে। ফ্রী ব্রেকফাস্টে পেট ফুলিয়ে লবিতে এসে বসতে না বসতেই দুয়ারে গাড়ি। দরবার স্কোয়ার, এবার কাঠমাণ্ডুর।

    সকাল ১০.১০

    দরবার স্কোয়ারের দোরগোড়ায় পৌঁছে দুয়ারে দরবার করে গাড়িটাকে একেবারে স্কোয়ার চত্বরে নিয়ে আসা গেল। এবার চরে বেড়ানো। মনে পড়ে গেল এই দরবার স্কোয়ার প্রথম দেখেছিলাম ১৯৮৩তে অন্নপূর্ণা বেসক্যাম্প ট্রেক করে ফেরার পথে। এত বছরে ভয়ানক যে বদলেছে, তেমনটা বলা যাবে না। ২০১৫-র ভূমিকম্পের ছাপ চোখে পড়ল, তবে ‘পুনর্নির্মাণ’ বেশ সন্তোষজনক। কাষ্ঠ মণ্ডপ, যার অপভ্রংশ কাঠমাণ্ডু, মাথা তুলে দাঁড়িয়ে রয়েছে। ঘাড় তুলে দুজনে তাকে ঘাড় ব্যথা হওয়া পর্যন্ত দেখলাম। তারপর হাজির হলাম কালভৈরবের সামনে। একদম ‘যত কাণ্ড কাঠমাণ্ডুতে’-র হেডপিসের রঙীন সংস্করণ। উনিই ইশারায় জানালেন, এবার আমাদের ‘শ্বেতভৈরবের সঙ্গে দেখা করা উচিত। করলাম। এঁর শুধু বদনটুকুরই বন্দনা করার সুযোগ মেলে। রাজবাড়ি, স্কোয়ারের অন্যান্য মন্দির, বিশেষ করে কুমারী ঢোকা, যেখানে স্বয়ং কুমারী দেবী সশরীরে বিরাজমান, এঁদের ঝাঁকিদর্শনেই সন্তুষ্ট থাকতে হলো। পায়েরা বড্ড আপত্তি জানাতে আরম্ভ করেছে। ১১টায় দরবার স্কোয়ারের চত্বর ছেড়ে সাড়ে ১১টায় বুঢ়া নীলকণ্ঠ-এর চরণে হাজির হলাম। ওঁকে ঘিরে পাঁচিল তোলা হয়েছে। এমনকী যে পুকুরের জলে ওঁর শয্যা, সেটাও পাঁচিলে ঘেরা এখন। বুঢ়া নীলকণ্ঠ নাম হলেও ইনি আসলে অনন্তনাগের শয়ানে বিষ্ণু। রোদ্দুরের হাত থেকে ওঁকে বাঁচাতে মাথার ওপর রঙীন চাঁদোয়া। ভক্তদের ভীড়ে জমজমাট গোটা চত্বর। ওঁর দর্শন সেরে বেরোতেই মনে পড়ে গেল আমরা বাঙালি হয়েও এতক্ষণ চা না খেয়ে আছি; এ তো মহাপাপ! অতএব, একটি চা-টা-খানায় ঢুঁ মারতেই হলো। শুধু চা আমাদের পোষায় না, তাই খানিক টা-ও উদরস্থ হলো। তাতে জঠরাগ্নি নির্বাপিত হওয়ার বদলে হুতাশন হয়ে দেখা দিল।

    অতএব, ঝটপট ব্যাক টু হোটেল।

    দ্বিপ্রাহরিক আহারান্তে শয্যাস্থ হওয়া অনিবার্য।

    দিনের বাকিটুকু শুয়ে বসেই কেটে গেল।

    সুটকেসে জামাকাপড়, আর মনে নেপালের দুরন্ত স্মৃতি ভরে রাতে শুয়ে পড়ল বুড়োবুড়ি।

    আগামীকাল ‘বিনা ভিসা’ শেষ।



    অলংকরণ (Artwork) : স্কেচঃ লেখক
  • পর্ব ১ | পর্ব ২ | শেষ পর্ব
  • মন্তব্য জমা দিন / Make a comment
  • (?)