পরবাস-৫১ সূচিপত্র

সম্পাদকীয় চিঠিপত্র শিল্প-সাহিত্য সংবাদ লেখক পরিচিতি

রবীন্দ্রসঙ্গীত
শংকর চট্টোপাধ্যায়
— দিন অবসান হল
— অন্তরে জাগিছ অন্তরযামী


অণিমা চট্টোপাধ্যায়
— হৃদয়বেদনা বহিয়া, প্রভু হে
— তুমি যেয়ো না এখনি



ধারাবাহিক উপন্যাস যাত্রী - দেবজ্যোতি ভট্টাচার্য "“জানি, জানি,” বলতে বলতে তাঁর আঙুলের সুনির্দিষ্ট স্পর্শে দোতারাটি কথা কয়ে উঠলো। ধাতব তারের উচ্চকিত কুমারী তীক্ষ্ণতা, যন্ত্রের নিমকাঠের শরীরকে তার তীব্রতা সমর্পণ করে গৃহিণীর গাম্ভীর্য পেয়েছে। ধ্বনির মিষ্টত্ব তাতে বেড়েছে বই কমেনি। .."

| | | | | | |

প্রবন্ধ, সমালোচনা, রম্যরচনা অমিয় চক্রবর্তীর তৃতীয় রাশিয়া ভ্রমণ সংগ্রহ ও পরিচিতি: সুমিতা চক্রবর্তী কবি অমিয় চক্রবর্তী ১৯৫৯ সালে তৃতীয়বার রাশিয়া গিয়েছিলেন বোরিস পাস্তেরনাক-এর সঙ্গে দেখা করার জন্যে। সেই সাক্ষাৎকার ও তার পরিচিতি।


দেখার রকমফের: ঋত্বিক ও সত্যজিৎ সঞ্জয় মুখোপাধ্যায় "... বিনোদবিহারীর অন্তর্গত প্রশান্তি আকর্ষণ করেছিল সত্যজিৎকে, আর ঋত্বিককে টেনেছিল রামকিঙ্করের অভ্যন্তরীণ অশান্তি। আসলে এই তথ্যচিত্র দুটি পরীক্ষা করলেই দেখা যায় বাস্তববাদ বিষয়ে, শিল্পের উৎস ও আকাঙ্ক্ষা বিষয়ে, সত্যজিৎ ও ঋত্বিকের ধারণাগত মিল ও অমিল।"


ফিরে দেখা—বুদ্ধদেবের অনুবীক্ষণে রবীন্দ্র-রচনা শান্তনু চক্রবর্তী বুদ্ধদেব বসুর অগ্রন্থিত গদ্য 'কবিতা' থেকে; ২য় খণ্ড : রবীন্দ্রনাথ; সম্পাদনা : দময়ন্তী বসু সিং--বইটির মনোজ্ঞ সমালোচনা




‘ফেমিনিজম’: কিছু বিভ্রান্তি, কিছু সংশয় দূর্বা বসু "...নারীবাদ তো সীমিত নয় কেবল মেয়েদের ব্যক্তিগত সমস্যার মোকাবিলায়, বরং অন্য যেকোনো আন্দোলনের, আদর্শের তুলনায় ফেমিনিজম-এর মূল বার্তা অনেক বিস্তৃত—একথা স্পষ্ট করে বলার সময় এসেছে।"


       
গ্রন্থ-সমালোচনা

ভবভূতি ভট্টাচার্য


সতীর্থের শ্রদ্ধাঞ্জলি প্রবুদ্ধ বাগচী রবীন্দ্রনাথ ও শান্তিনিকেতন, ক্ষিতিমোহন সেন-এর বইটির সমালোচনা



কবিতা তিনটি কবিতা - ইন্দ্রাণী মুখোপাধ্যায়

দু'টি কবিতা - পিনাকী ঠাকুর

আবোলতাবোল ইচ্ছে - সুনন্দ কুমার সান্যাল

বিবর্ণ এলিজি - নিরুপম চক্রবর্তী

কাছিম-কাহিনি - অরুণিমা ভট্টাচার্য

ডেলি প্যাসেঞ্জার - ডেভিড সুমন্ত্র হেমব্রম

দু'টি কবিতা - অর্চনা দত্ত

অধরা - সোমা ঘোষ

গর্ভকথা - পল্লববরণ পাল

জন্মদিন - শর্মিষ্ঠা নাথ

দু'টি কবিতা - পার্থজ্যোতি

অসম্পূর্ণ - কমলিকা চক্রবর্তী

এবং মৃত্যু - সুচেতা রায়


গল্প অমলিন কথামালা হইয়া - দিবাকর ভট্টাচার্য "—এরপর?
এরপর খুব সুন্দর ঢংঢং ঢংঢং মিষ্টি আওয়াজ করে দেওয়াল ঘড়িটা সময় জানিয়ে দিল।
—অর্থাৎ?
অর্থাৎ গল্পটা এখানেই শেষ হয়ে গেল।
—তাহলে?
তাহলে এরপর যদি কিছু থাকে তা গল্প নয়। ..."


রঘুপতির চাদর - কৌশিক ভাদুড়ী "রঘুপতির প্রথাগত শিক্ষা বেশি নেই। তবে শুনেছেন দৃশ্যমান ছায়াপথের বাইরেও নাকি ছায়াপথ আছে। মানে এক চাদরেই সব ঢাকা পড়েনা। এণ্ড্রোমিডা ছায়াপথ আয়াস-সাধ্য হলেও কখনো কখনো খালি চোখেও দেখা যায়। ..."

অভিমুখ - --শ্রাবণী দাশগুপ্ত "চৈতীপর্ণার সঙ্গে দু’বছর তিনমাস এগারদিন হল আইনি ছাড়াছাড়ি হয়ে গেছে। আর সেজন্যেই এইস্যা একখানা নিঃশ্বাস ফেলে একবুক শ্বাস গিলে নিয়ে এই অঞ্চলে এসে বাসস্থান নেওয়া। ..."



কোনো এক জলকন্যা - হাসান জাহিদ "এরকম অদ্রব্য জীবন। ওষুধ আর মৃত্যুর গন্ধমাখা জীবন। সুবিশাল ওয়ার্ড আর এমার্জেন্সি তাড়িত জীবন। সিস্টার নলিনী আর সিস্টার আনজু, ওয়ার্ডবয় জহির, মোটা চশমা-পরা প্রফেসর বর্মণ পরিবেষ্টিত অ্যান্টিবায়োটিকময় জীবন। ..."


আউটসোর্স - --রুচিরা "বরফের মতো শক্ত আর ঠাণ্ডা গলায় উত্তর আসে, 'আমি তোমার কাজটা আউটসোর্স করে দিয়েছি।'
মাথার মধ্যে বজ্রপাত হয়। মাথা ঠাণ্ডা করে এক্ষুনি একটা ডিসিশান নেওয়া উচিত। অফেন্সিভ খেলবে না ডিফেন্সিভ। ..."



জামানত - --সুবীর বোস "আমি বেশ ছোটবেলা থেকেই জানতাম যে, ইংল্যান্ডের জর্জ বেস্ট বিশাল মাপের ফুটবলার ছিলেন। এও জানতাম যে, অত বড় মাপের ফুটবলার হওয়া সত্বেও জর্জ বেস্টকে কখনও বিশ্বকাপ ফুটবলের আঙিনায় দেখা যায়নি। ..."


উত্তরসূরি - --সুনন্দ কুমার স্যান্যাল "তর্কাতর্কি শুনতে শুনতে বোধহয় একটু ঝিমিয়েই পড়েছিল দ্বীপ। প্রসঙ্গ কখন যেন এসে ঠেকেছে পশ্চিমবঙ্গের রাজনীতিতে। হঠাৎ কানে এল প্রদীপ চক্রবর্তীর গলা,
—'আরে, গ্রামের সংগঠন নিয়ে তোমাদের যদি অতই বড়াই, তাহলে আজ রাজ্যে এত ম্যাওবাদী অসন্তোষ কোত্থেকে আসে বাওয়া? এও কি কেন্দ্রের চক্রান্ত বলতে চাও?' ..."


চল-চল-চল স্মৃতির অতলে চল - --গৌতম দাস "রবিবারের পর নতুন করে আবার মাছ ধরতে হবে, রাজুকে জিজ্ঞাসা করতে হবে বিয়েতে ও কটা মাছ নেবে? বেশি মাছ চাইলে ওকেও বলব আমার সঙ্গে মাছ ধরতে, আমি তো মেয়ে, আমি কি সব কাজ একা-একা করতে পারি?
চল-চল-চল-স্মৃতির অতলে চল। ..."



আরো কিছুক্ষণ - --কৌশিক সেন "সুলগ্না কান্নায় ভেঙে পড়েছে। এই অবস্থায় অরিন্দম আর তর্ক চালায় না বরং যেভাবে পারে ওকে শান্ত করতে চেষ্টা করে। চেষ্টা করতে করতে অরিন্দমের মনে হল রবীন্দ্রনাথের মালঞ্চ নাটকটা ওকে একবার পড়তে দেয়। তারপরেই নাটকের শেষটা মনে করে শিউরে উঠল— ও কি সত্যিই কারো মৃত্যুর অপেক্ষায় দিন গুনছে আজকাল? ..."

বিভ্রম কাহিনী - --তৃষ্ণা বসাক "অথচ, এসব জেনেশুনেও মানব আগে থেকে কোথাও কোনো হোটেল বুক করে আসেনি, একমাত্র রাজাভাতখাওয়ায় সরকারি লজ ছাড়া। সোহিনীর টেনশন হচ্ছিল। যদিও সে ভ্রমণের প্রথম পর্বেই সেপারেশনের কথা উচ্চারণ করে দিয়েছে, তবু মানবের দায়ে, সে সংশ্লিষ্ট না হয়ে পারছিল না। ..."
ভ্রমণকাহিনি প্রস্তরনগরী পেট্রা - ছন্দা চট্টোপাধ্যায় বিউট্রা
" ছন্দা বিউট্রা
ঘুরে এলো পেট্রা
দেখে এলো মরু, গাধা
উট এট্‌-সেট্‌রা।
..."


প্রকৃতির খোলাখাম, চারখোল কোলাখাম (স্কেচ ও লেখা) - রাহুল মজুমদার জীবনে প্রথমবার করোনেশন ব্রিজ (অনেকে বলে বাঘপুল, যদিও পুলের মুখে মূর্তিদুটো স্নো লায়নের) পেরোলাম। এবার উলটোবাগে ছুট।
বেলা সোয়া এগারোটা -
চা বাগানের বুক চিরে ছুটতে ছুটতে ওদলাবাড়ি পেরিয়ে ডামডিম এসে গাড়ি দম নিল। এবার বামপন্থা। ..."





ধারাবাহিক কিশোর উপন্যাস মেঘকেতন - স্বপনকুমার ঘোষ "গভীর রাত্রিতে নিদ্রাভঙ্গ হল সিংহগর্জনে। অন্ধকারে দৃষ্টি চলে না। তবু বোধ হল মহীরুহের তলদেশে কিছু একটা আলোড়ন চলেছে। তবে কি প্রিয় অশ্বকে সিংহ আক্রমণ করেছে? ভাবতে ভাবতেই অশ্বের রুদ্ধকণ্ঠ আহ্বান কানে এল। রাজপুত্র ত্বরিত বেগে ..."
| |
গল্প আড়ি - দেবদত্ত জোয়ারদার "আমি তখন গল্পে মশগুল, একটা সিগারেট ধরিয়েছি, হাতে চায়ের কাপ, পায়ের ওপর পা তোলা, লুঙ্গির মতো করে ধুতি পরনে, গায়ে হাত-কাটা গেঞ্জি, এখুনি উঠব আমার ভঙ্গিতে এমন কোনো লক্ষণ নেই। টুসি পর্দা সরিয়ে ঘরে ঢুকল, চলার ছন্দে ছন্দে মাথার ঝুঁটিটা অল্প অল্প লাফাচ্ছে, ..."

জন্মদিন - অনন্যা দাশ "টুই মুখ কাঁচুমাচু করে বলল, “না, সেদিন হবে না আমার নাচের অনুষ্ঠান আছে। তাছাড়া সেদিন চারিদিকে ফাংশান। সবাই কিছু না কিছু করছে কেউ আসতে পারবে না। তার চেয়ে বরং তেইশে জানুয়ারি ..."


ভুতুড়ে - অদিতি ভট্টাচার্য্য "স্কুল বাসে উঠে জানলার ধারে মনের মতো সিটে বসেই টুপুরের হঠাৎ মনে পড়ল, আরে আজকে তো ফুলঝুরির নতুন সংখ্যা আপলোড হবে। মনে পড়তেই কম্পিউটারের সামনে বসার জন্যে মন ছটফট করে উঠল। কখন যে বাসটা বাড়ি পৌঁছবে, ..."


পিসিমণির হারমোনিয়াম - সুব্রত সরকার "চারশো-বিশ জর্দার সঙ্গে আচ্ছা করে দোক্তাপাতা, বড় সুপুরি আর চুণ-খয়ের দিয়ে সাজানো বিগ সাইজের একজোড়া পান মুখে পুরে চিবুতে চিবুতে পিসিমণি কেমন হ্যালাফ্যালা করে বলল, ওরে গুবলু, হিমালয়টা যে ওখানে! তোর ক্ষমতা থাকে তো বাইপাসের ধারে নিয়ে আয়। তখন আর আমি বছর বছর হিমালয়ে যাব না!.... ..."


parabaas@parabaas.com
Copyright, 2012, Parabaas Inc.